মুসলমান অ্যাথলেটদের জন্য ‘মোবাইল মসজিদ’

জাপানের রাজধানী টোকিওতে বসবে ২০২০ সালের অলিম্পিক আসর। সে অলিম্পিকে অংশগ্রহণকারী মুসলিম অ্যাথলেট, কর্মকর্তা ও পরিদর্শকদের নামাজ আদায়ের জন্য ভ্রাম্যমান মসজিদ স্থাপনের উদ্যোগ নিয়েছে অলিম্পিক আয়োজক কর্তৃপক্ষ।এশীয় অঞ্চলে ১৯৬৪ সালের পর দ্বিতীয় বারের মতো ২০২০ সালে অলিম্পিক আয়োজন করতে যাচ্ছে দেশটি। এ আয়োজনে কোনো বিভাগেই যেন ঘাঁটতি না থাকে সে দিকে লক্ষ্য রেখেই মুসলিমদের জন্য ভ্রাম্যমান মসজিদের আয়োজন।

ভ্রাম্যমান এ মসজিদগুলো অলিম্পিকের বিভিন্ন ইভেন্ট আয়োজনের স্থান, প্রশিক্ষণ ক্যাম্প, আবাসন ক্যাম্প ও অন্য প্রয়োজনীয় সাইটগুলোর পাশে রাখা হবে।এ মসজিদগুলো বড় বড় ট্রাকের ওপর নির্মাণ করা হবে। যাতে এগুলো বিভিন্ন ভেন্যুতে স্থানান্তর করা যায়। এ রকম মোট ১০টি ভ্রাম্যমান মসজিদ নির্মান করা হবে।টোকিও আলিম্পিকে মুসলিমদের আমন্ত্রণ জানানোরও একটি বিশেষ উদ্যোগ এটি। অলিম্পিকে আগত মুসলিমরা যেন নামাজ পড়ার একটি উপযুক্ত পরিবেশ পায়, সে দিকে দেশটি গুরুত্ব দিয়েছে।মসজিদের ভেতরের অবকাঠামো সাজ-সজ্জার দায়িত্ব কাতারের এক ডিজাইনারকে দেয়া হয়েছে। ভ্রাম্যমান এ মসজিদটি ২০১৮ সালের শেষ দিকে উদ্বোধন করার সম্ভাবনা রয়েছে।উল্লেখ্য যে, ১৯৩১ সালে জাপানে সর্বপ্রথম মসজিদ প্রতিষ্ঠিত হয়। জাপানের মোট জনসংখ্যার মাত্র ২ শতাংশ মানুষ মুসলমান। বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে প্রবাসী আসার কারণে জাপানে দিন দিন মুসলমানের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। পাশাপাশি বাড়ছে মসজিদের সংখ্যাও।

You might also like

Leave a Reply

শিরোনাম