রাজশাহীতে দুই ছেলের হাতে বৃদ্ধ খুন

রাজশাহীতে দুই ছেলের হাতে এক বৃদ্ধ খুন হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। নিহত ওই ব্যক্তির নাম আবুল শেখ (৬৫)। তার বাড়ি নগরীর বহরমপুর এলাকায়। সোমবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ওই ব্যক্তিকে বালিশ চাপা দিয়ে ঘরের মধ্যে খুন করা হয়। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ শরিফুল ইসলাম নামে তার এক ছেলেকে আটক করেছে।

নিহতের মেঝ ছেলে আবু বাক্কার সিদ্দিক ওরফে সুরুজ (৩৫) জানান, ছোট ভাই শরীফ তার কাছ থেকে চার লাখ টাকা ধার নিয়েছিলেন। কিন্তু এ টাকা তিনি ফেরত দিচ্ছিলেন না। এ নিয়ে রবিবার সন্ধ্যায় স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলরের চেম্বারে সালিশ ডাকা হয়। কিন্তু সেখানে কোনো মিমাংসা হয়নি। এ নিয়ে সোমবার সকালে বাড়িতে তাদের মধ্যে বাকবিতণ্ডা শুরু হয়। এ সময় বাবা আবদুল শেখ তার পক্ষ নেন। আর বড় ভাই আবু তাহের ওরফে সুজন (৪০) ছোট ভাইয়ের পক্ষ নেন। এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে হাতাহাতি শুরু হয়। এ সময় সুজন ও শরীফ তাদের বাবা আবদুল শেখকে গলাটিপে হত্যা করেন।

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতাল পুলিশ বক্স সূত্রে জানা গেছে, বেলা সাড়ে ১১টার দিকে আবদুল শেখকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। এ সময় জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে ময়না তদন্তের জন্য তার মরদেহ রামেকের মর্গে পাঠানো হয়।

নগরীর রাজপাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আমান উল্লাহ জানান, ঘটনার পর ছোট ছেলে শরীফকে বাড়ি থেকে আটক করা হয়েছে। আর কে কে এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। নিহতের মরদেহের ময়না তদন্ত করা হচ্ছে।

সূত্রঃ বাংলাদেশ প্রতিদিন।

শিরোনাম